Friday

Bangla Story Books | 1413 Tukro Ekti Lash | ১৪১৩ টুকরো একটি লাশ

SHARE

Bangla Story Books | 1413 Tukro Ekti Lash | ১৪১৩ টুকরো একটি লাশ


1413 tukro ekti lash bangla boi

বই: ১৪১৩ টুকরো একটি লাশ
লেখক: মাস্টার দা নাঈম
ধরণ: ছোটগল্প
প্রকাশক: দাঁড়িকমা প্রকাশনী
প্রকাশকাল: ২০১৮ বইমেলা
মুদ্রিত মূল্য: ১৫০


"১৪১৩ টুকরো একটি লাশ"

নাম থেকেই আকৃষ্টতা আর এটুকু স্পষ্ট যে,
শারীরিক কোনো অবয়বকে এতটা টুকরো না করা গেলেও, দেহকে বয়ে বেড়ানো আত্মার জীবন্ত লাশকে কিন্তু এতটা কিংবা তারচেয়েও বেশি টুকরো করা অবশ্যই সম্ভব।
তাই স্বাভাবিকভাবেই, আত্মিক লাশের ১৪১৩ টুকরো তুলে ধরা হয়েছে; বইটির শিরোনাম গল্পে।

মোট ৮ টি গল্পের সমন্বয়ে শিরোনাম গল্পের এই বইটি।
এর মধ্যে সবচেয়ে ভালো লাগার -
'সময়টা একাত্তর'
এ গল্পের শুরু এবং শেষটা মিলে একে একটা স্বার্থক ছোটগল্প বলা যায়। এর বর্ণন ভঙ্গিও স্পর্শক্ষম। 
আমি এমনিও আমার দেশে ঘটিত অন্যায়ের বিরুদ্ধে - ন্যায়ের যুদ্ধগুলো নিয়ে জানতে গেলে, পড়তে গেলে ভীষণ আবেগপ্রবণ হয়ে যাই।
কেমন এক শ্বাসরোধ করা কান্না আর চাপা গর্ব আটকে থাকে ভেতরে। চেপে রাখতে হয় একই সাথে এই দুই অনুভূতি। ফলাফলে মনে হয়, এই বুঝি শ্বাসরোধ হলো; আনন্দ-বেদনার মিশ্র অনুভূতির তীব্রতায়।
ঠিক এ শ্বাসরোধক অনভূতি নিয়েই পড়েছি 'সময়টা একাত্তর' গল্পটিও।
বলা যায়, অনুভূতিকে ছুঁয়ে দেয়া একটি জীবন্ত গল্প অথবা জীবনের গল্প।

'জলে ভাসা জীবন' গল্পে বেঁচে থাকার সংগ্রামে বেঁচে যেয়েও মরে যাওয়া নির্মমতার একাংশ দেখানো হয়েছে, একটি আচমকা বন্যা কবলিত পরিবারের মাধ্যমে।
এই পরিবারটি আর এর পরিণতিও যেন আমাদের জন্য চিরায়ত একটি দৃশ্য। যা প্রতি বন্যা কবলিত এলাকায়ই দৃশ্যমান অথচ যার পরিণতির পরিবর্তনের আবর্তনে নেই আজো তেমন কোনো চোখে পড়ার মতো পরিবর্তন!
তবে এ গল্পেও শেষ লাইনের পূর্বের কিছু লাইনের বর্ণনাভঙ্গিতে ছন্দপতন ঘটেছিল।

লেখার গভীরতা এবং বাক্যের আগে পরের সামঞ্জস্যতায় কিছুটা বিঘ্নতা থাকলেও বইটা মন্দ লাগার নয়।
একঘেয়ে সস্তা প্রেমের গল্প আর ধার করা গল্প পড়তে পড়তে যখন তিক্ততার সময়, তখন আলাদা কনসেপ্টের আলাদা আলাদা এমন সব গল্প পড়তে মন্দ লাগে না।
প্রত্যেকটা গল্প আলাদা করে কথা বলে এবং প্রতিটি গল্পের উপজীব্যই বাস্তবিক। 
গল্পে শব্দের ব্যবহার যথার্থ থাকলেও বাক্যের বুননে কিছু শব্দের ওপর-নিচ কখনো বক্তার অনুভূতি, কখনোবা গল্পকে হালকা করে দিয়েছে। তবে প্রায় গল্পেই শেষাংশে যেয়ে মাত্র এক একটা বাক্যেই চমৎকার একটা সমাপ্তি এসেছে আর
এক বাক্যে গল্পের সারটাকে তুলে ধরেছে। এ বিষয়টা আমার ভালো লেগেছে।
যেমন - 'মা ও প্লাস্টিকের গোলাপ' গল্পের শুরু এবং প্রবাহমানতায় এক মনে হয়েছে, কিন্তু শেষাংশে এসে ঝট করেই তা অন্য এক বার্তা দিয়েছে অথচ গল্পের শুরুতে এবং অনেকটা শেষেও এমনটা মনে হয়নি।
বার্তাটি ছিলো-' এরা নেশাখোর, এরা জাতীর দুশমন'। 
এ বাক্যেই প্রতীয়মান; গল্পকে কেন্দ্র করে পরিণতি নয়,বরং পরিণতিকে তুলে ধরতেই গল্প।
এই গল্পটি লেখার ধরণ নিয়ে মন্তব্য না করলেও, গল্পকরণের প্রক্রিয়াটাকে অভিনন্দন জানাবো।

বইটি সম্পর্কে সংক্ষেপে বলতে গেলে- আরো একটু পরিণত আর গভীরতা থাকলে পড়তে আরাম হতো।

শুভ কামনায় চাইবো-
এ ধরণের গল্পের ধারকগণ আরো বই নিয়ে আসুক। পাঠক সমাজকে উপহার দিক এমন সুস্থ চেতনার,সুস্থধারার লেখা।
সাথে চাইবো- গভীরতা সম্পন্ন ; যা হয়তো লেখকের আর কিছুটা চেষ্টাতেই সম্ভব।

শুভ কামনা লেখক এবং তার আগামীর জন্য।


রকমারি লিংক: www.rokonari.com/darikoma
SHARE

Author: verified_user