Monday

Mota Hobar Upay | Moto Howar Upay | Ami Mota Hote Chai | কি ভাবে শরীরের ওজন বাড়ানো যায়

SHARE

Mota Hobar Upay | Moto Howar Upay | Ami Mota Hote Chai | কি ভাবে শরীরের ওজন বাড়ানো যায়


কেউ চিকন হতে চাই কেউ মোটা। অনেকেই আছে সারাদিন ফেসবুকের এই গ্রুপ ঐ গ্রুপে পোস্ট দিয়ে জানতে চান কিভাবে ওজন কমাবো কিভাবে ওজন কমাবো। ঠিক একইভাবে এর বিপরীতের মানুষও আছে যারা নিজেদের ওজন বাড়ানো নিয়ে সারাদিন চিন্তিত।কিভাবে ওজন বাড়াবেন?


চলুন জেনে আসি কি কি ভাবে শরীরের ওজন বাড়ানো যায়।









  1. mota hobar medicine
  2. mota hobar medicine bangla
  3. roga thak mota houyar sahaj upay
  4. mota howar ghoroa upay
  5. mota hobar osud name
  6. weight baranor upay
  7. ami mota hote chai
  8. ki korle mota hobo

1. খাবারে ক্যালরির পরিমান বৃদ্ধি করুন। আপনার নিয়মিত খাবারে ক্যালরির পরিমান বাড়িয়ে নিন। সারাদিনে যে পরিমানে ক্যালরি আপনি খরচ করেন তারচেয়ে 500/600 ক্যালরি বেশি গ্রহন করুন। এতে আপনার ওজন দ্রুত বাড়ব। কিভাবে ক্যালরি বৃদ্ধি করবেন? খাবারে চিজ বাটার বেশি বেশি যুক্ত করুন। বাদাম খান প্রতিদিন। ওলিভ ওয়েলে প্রচুর ক্যালোরি থাকে।
2. উচ্চ চর্বি যুক্ত খাবার খান।
mota hobar medicine
ওজন বাড়াতে হলে আপনার খাবারের লিস্টে অবশ্যই চর্বিযুক্ত খাবার যোগ করতে হবে। Eat nuts, seeds, and seed and nut butters. Try cheese and crackers, or dried fruit and full fat yogurt. Hummus is great on bread or vegetables. অর্থাত প্রচুর বাদাম, মটরশুঁটি, ছোলা, ফল খান।

3. দুধ খান বেশি বেশি .
weight baranor upay অবশ্যই চর্বিযুক্ত দুধ।বাজারের বেশিরভাগ দুধই চর্বিমুক্ত কেননা চর্বি ক্ষতিকর। কিন্তু ওজন বাড়াতে চর্বির বিকল্প নেই।তাই দুধ খান বেশি। অনেকেই স্মুথি বা মিল্ক শেক খেতে পছন্দ করেন,তারা শেকের সাথে অতিরিক প্রোটিন পাওডার মিশিয়ে নিন। প্রানীও দুধের চেয়ে উদ্ধিজ্জ দুধে চর্বি বেশি থাকে এবং খেতেও মজাদার। যেমন নারিকেলের দুধ।
4. প্রোটিন। ডায়েট লিস্টে বেশি বেশি প্রোটিন যুক্ত করুন । প্রোটিন ওজন বাড়াতে সাহায্য করবে বিশেষ করে আপনার পেশি। আপনি যদি আপনার পেশিকে শক্ত এবং মোটা করতে চান তাহলে বেশি বেশি প্রোটিনযুক্ত খাবার খান। সামুদ্রিক মাছে প্রচুর প্রোটিন থাকে। প্রোটিন আছে ছোলা, ভুট্টা,মটরশুঁটি, ডালে। নিয়মিত খাবারে এগুলো এড করে নিন। মোটা হবেন দ্রুত। 5. প্রচুর ফলমূল খান।কলা, জাম,আম,কাঠাল, আঙুর ক্যালরিতে ভরপুর। এগুলোর ফাইবার পেশি গঠনেও দারুন কাজ করে। 6. কাচা শাকসবজি। হ্যা ঠিকই শুনেছেন, কাচা শাকসবজি। রান্না করা শাক সবজি, শস্যের চেয়ে কাচা শস্যে বেশি ভিটামিন থাকে। এজন্যই দেখে থাকবেন জিম ইন্সট্রাকটর কাচা ছোলা খেতে বলে। বেশি বেশি কাচা ছোলা খান।



7. ডেজার্ট বা মিষ্টি জাতীয় খাবার খান। রাতে ডিনার শেষে মিষ্টি জাতীয় খাবার খান। মিস্টিতে যদি আপনার সমস্যা হয় তাহলে ডার্ক চকলেট খান। মাঝেমাঝে আইসক্রিম অথবা কেকও খেতে পারেন। Mota Hobar Upay 8.
সারাদিনে বেশি বেশি খাবার খান। সাধারনত আমরা দিনে তিনবার খাবার গ্রহন করি। কিন্তু আপনি অল্প অল্প হলেও সারাদিনে 5/6 বার খাবার খাবেন। এবং মাঝের সময়ে হালকা পাতলা নাস্তা করবেন। সবসময় পেটকে ভরপুর রাখেন। 9. যারা জিমে যান কিংবা ঘরেই ব্যায়াম করেন তারা অবশ্যই ওয়ার্কআউটের আগে এবং পরে খাবার খাবেন। ব্যায়াম শুরুর আগে এবং ব্যায়াম শেষে। 10. ধীরে ধীরে আগান। খুব অল্পসময়ে খুব বেশি ওজন বাড়ালে আপনার স্বাস্থের ক্ষতি হবে। তাছাড়া এটা কোন উপকারও আনবেনা। তাই ধীরে ধীরে ওজন বাড়ান। 7 দিনেই 10 কেজি ওজন বাড়িয়ে আপনি কোন সুফল ভোগ করতে পারবেন না উল্টা অসুস্থ হবার সম্ভাবনা আছে। Here are 10 more tips to gain weight: 1. Don't drink water before meals. খাওয়ার শুরুতে পানি খেলে খাবারের প্রতি অনিহা আসে।পানিতেই পেট ভরে যায় ফলে মূল খাবার পনিমানমত খাওয়া হয় না। তাই খাওয়ার শুরুতে পানি খাবেন না। ঘনঘন খাবার খান।দিনে 5 /6 বার। বেশি বেশি দুধ খান। Try weight gainer shakes. If you are really struggling then you can try weight gainer shakes. These are very high in protein, carbs and calories. বড় প্লেটে খাবার। ছোট প্লেটে বারবার খাবার নেওয়া হয় না। বেশি খাওয়া হয়ে যাচ্ছে বলে মনে হয়। পেশি গঠনের জন্য ভালো সাপ্লিমেন্ট গ্রহন করতে পারেন। পরিমিত ঘুমান। ঘুম কম হলে স্বাস্থের উপর প্রভাব পড়ে। তাই নিয়মিত পরিমিত ঘুমান। দৈনিক 8 ঘন্টা। ধূমপায়ী হয়ে থাকলে ছেড়ে দিন। স্মোকিং স্বাস্থের ক্ষতি করে,পরিবেশের ক্ষতি করে,পরিবারের ক্ষতি করে আর্থিকভাবে ক্ষতি করে। স্মোকিং এর সবই ক্ষতিকর কোনই উপকার নেই তাই স্মোকিং ছেড়ে দিন। Moto Howar Upay আপনি কি জানেন বেশী মোটা কিংবা শুকনা কোনোটাই ভাল নয়; মাঝামাঝি থাকাটাই মঙ্গলময়। স্বাস্থ্য প্রকৃতিগত ভাবে পাওয়া। চাইলেই যদি সব পাওয়া যেত তাহলে ইচ্ছেমত সবাই শরীরটাকে বদলে দিত, তবে হ্যা চর্চার মাধ্যমে সব অসম্ভবকে সম্ভব করা যায়: > যদি নিয়মিত পুষ্টিকর খাবার খান এবং রাতের ঘুম ঠিক রাখেন তাহলে আপনি তাড়াতাড়ি আপনার স্বাস্থ্য মোটা করতে পারবেন। না ঘুমাতে পারলে আপনার শরীর ক্যালরী ধরে রাখতে পারে না। রাতে তাড়াতাড়ি খাওয়া শেষ করুন এবং তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়ুন। >একটা নিদিষ্ট সময় ধরে খাবেন। সকালে ঘুম থেকে উঠে এক ঘন্টার মধ্যে সকালের নাস্তা শেষ করুন। সকালে প্রচুর পরিমাণে খেয়ে নিতে পারেন। >সফ্ট ড্রিংকস্ এবং ফ্যাটি খাবার খেলে স্বাস্থ্য মোটা হয়। এতে হাই-ইন্সুলিন থাকে। ইন্সুলিন হরমোন তৈরি করে। যার সাহায্যে শরীরে কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন এবং ফ্যাট জমে।>এনার্জি ফুড খেলেও আপনি মোটা হবেন। >এ্যালকোহল পান করলে শরীর মোটা হয়। এটা আপনার মাংশপেশীতে হরমোন তৈরি করে।আপু আপনি খুব দ্রুত মোটা হয়ে যাবেন। আপনি কল্পনাও করতে পারবেন না কিভাবে এত দ্রুত মোটা হওয়া সম্ভব।


Mota Hobar Apps


SHARE

Author: verified_user